ইসলামিকঃ

মহান আল্লাহ তা’আলা মানুষকে এই পৃথিবীতে তাঁর ইবাদতের জন্য সৃষ্টি করেছেন। মানুষ পৃথিবীতে যতদিন বেঁচে থাকে ততদিনই তার আমল করার সময়। মৃত্যু বরণ করার সাথে সাথে তার আমলের দরজা বন্ধ হয়ে যায়। তাই পরকালে শান্তিময় জীবন লাভ করতে চাইলে অবশ্যই তাকে মৃত্যুর পূর্বে ভাল আমল করে যেতে হবে।

আমাদের সমাজের লোকেরা তাঁদের মৃত পিতা-মাতাদের জন্য অনেক ধরনের আমল করে থাকে। অনেকেই জানতে চান তাঁদের মৃত মা-বাবার জন্য কি দু‘আ এবং সত্কাজ করা যায়- যার মাধ্যমে তাঁরা শান্তিতে থাকতে পারেন।

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহ সুবহানু ওয়া তাআলা আমাদের সবার জীবিত/মৃত বাবা-মায়ের প্রতি দয়া করুক এবং তাঁদের উত্তম প্রতিদান প্রদান করুক; আমীন!

১. মা-বাবার জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করা
মা-বাবার জন্য বেশি বেশি ক্ষমা প্রার্থনা করা একটি গুরুত্বপূর্ণ আমল।

২. বেশি বেশি দোয়া করা
হে আল্লাহ, তাদের উভয়ের প্রতি রহম করুন। যেমন তারা শৈশব কালে আমাকে লালন-পালন করেছেন।

৩.দান-সাদকাহ করা
সবচেয়ে উত্তম হচ্ছে সাদাকায়ে জারিয়া বা প্রবাহমান সাদকাহ প্রদান করা। যেমনঃ টিউবওয়েল বসানো।

৪.মা-বাবার পক্ষ থেকে রোজা রাখা
রাসূল বলেছেন, যে ব্যক্তি ওয়াজিব রোজা না রাখা অবস্থায় মৃত্যু বরণ করলো, এমতাবস্থায় তার পক্ষ থেকে তার ওয়ারিশ গণ রোজা রাখবে।
(সহিহ বুখারীর হাদিস)

৫. মা-বাবার আত্মীয়দের সাথে সুসম্পর্ক রাখা
রাসূল বলেছেন, যে ব্যক্তি পিতার সাথে কবরে সুসম্পর্ক করতে ভালবাসে, সে যেন পিতার মৃত্যুর পর তার ভাইদের সাথে সুসম্পর্ক রাখে।

৬. মা-বাবার ঋণ পরিশোধ করা
রাসূল বলেছেন, যতক্ষণ পর্যন্ত বান্দার ঋণ পরিশোধ না করা হবে ততক্ষণ পর্যন্ত সে জান্নাতে প্রবেশ করতে পারবে না।

৭. মা-বাবার ভালো কাজ সমূহ জারী রাখা
রাসূল বলেছেন, যে ব্যক্তি ইসলামের ভালো কাজ শুরু করলো, সে এ কাজ সম্পাদনকারীর অনুরূপ সাওয়াব পাবে। তাদের সাওয়াব থেকে কোনো কমতি হবে না।