মানুষ কত কিছু আশা করে! কত কিছু চায়! কত স্বপ্ন দেখে!। কিন্তু তার সব আশা পূরণ হয় না…সব স্বপ্ন বাস্তবায়িত হয় না। কারণ মানুষের আশা ও চাওয়া-পাওয়া পূর্ণ হওয়ার বিষয়টি মহান আল্লাহর হাতে রয়েছে।
.
তিনি মানুষকে তাই দেন যা তার জন্য কল্যাণকর। আমরা তো ভবিষ্যৎ সম্পর্কে জানি না যে, কোন জিনিসটি আমাদের জন্য উপকারী আর কোন জিনিসটি ক্ষতিকর। তাই আমরা আমাদের ইচ্ছেমত অনেক কিছু চাই।
.
কিন্তু দয়াময় মহান স্রষ্টা অবশ্যই আমাদের অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যৎ সম্পর্কে পরিপূর্ণ ও সবিস্তর অবগত। তাই তিনি তার অসীম জ্ঞানের আলোকে আমাদের কিছু চাওয়া পূরণ করেন না।
.
কিছু স্বপ্ন রেখে দেন অধরা। কারণ তিনি জানেন, এতে বান্দার ক্ষতি রয়েছে অথবা তিনি দুনিয়ায় বান্দার প্রত্যাশা ও চাওয়া পূরণ না করে আখিরাতের জন্য জমা রাখেন।
.
সে দিন তিনি তাকে এমন কিছু দিবেন যাতে সে সন্তুষ্ট হবে-যা তার জন্য দুনিয়ার পাওয়া থেকে বহুগুণ উত্তম।
.
আল্লাহ তাআলা বলেন:
.
ﻭَﻟَﻠْﺂﺧِﺮَﺓُ ﺧَﻴْﺮٌ ﻟَّﻚَ ﻣِﻦَ ﺍﻟْﺄُﻭﻟَﻰٰ ﻭَﻟَﺴَﻮْﻑَ ﻳُﻌْﻄِﻴﻚَ ﺭَﺑُّﻚَ ﻓَﺘَﺮْﺿَﻰٰ
.
“তোমার জন্য দুনিয়া থেকে আখিরাত অধিক উত্তম। তোমার রব তোমাকে অচিরেই (এমন কিছু) দান করবেন যাতে তুমি খুশি হবে।” (সূরা যোহা: ৪ ও ৫)
.
সুতরাং দুনিয়ার জীবনে আমাদের কোনো আশা বা স্বপ্ন বাস্তবায়িত না হলে, হতাশ হওয়া যাবে না বরং আল্লাহ নিকট আখিরাতে প্রতিদান আশা করতে হবে এবং আল্লাহর প্রতি সু ধারণা পোষণ করতে হবে।
.
নিশ্চয় তিনি বান্দার জন্য কল্যাণকামী ও শ্রেষ্ঠ অভিভাবক।