অন্যান্যঃ

অনেকেই আফসোস করে তার কোনো ভালো বন্ধু নেই। এমন চিন্তা আপনার মাথায়ও আসতে পারে। কিন্তু কখনো কি ভেবে দেখেছেন আপনি কারো ভালো বন্ধু হতে পেরেছেন কনা? তখনি ভালো বন্ধু আশা করবেন যখন আপনি নিজেকে কারো ভালো বন্ধু হিসেবে গড়ে তুলতে পারেন। ভালো বন্ধু হওয়ার কিছু বৈশিষ্ট্য রয়েছে:

১) Keep In Contact
প্রতিদিন হাজারো কাজের ভিড়ে অনেক সময় নিশ্বাস নেয়ারও সময় হয়না। জীবনকে অসহনীয় মনে হয় তখন। ঠিক এই সময়টা তে যদি কোনো বন্ধু আপনাকে কল করে বা দেখা করে আপনার খবর জানতে চায় সাথে সাথে আপনার মন ভালো হয়ে যায়।তাই সবসময় চেষ্টা করুন বন্ধুদের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রাখার।

২)Be Loyal To A Friend
বন্ধুকে আপনার প্রতি বিশ্বাস রাখানোর চেষ্টা করুন। কখনো বসন্তের কোকিলের মতো হবেন না যে সুসময়ে পাশে থাকে কিন্তু দুঃসময়ে তার ছায়া ও দেখা যায়না। ভেবে দেখুন এমন ব্যবহার যদি কেউ আপনার সাথে করে তাহলে আপনার কেমন লাগবে? তাই বন্ধুর বিপদে সাহায্য করতে না পারলেও তার পাশে থেকে তার সাহস যোগান। এই সামান্য বিষয় অনেক সময় মানুষকে আত্মবিশ্বাস ফিরে পেতে সাহায্য করে।

৩) Be Reliable
নিজেকে এমন একজন মানুষ হিসেবে গড়ে তুলুন যার কথায় নিশ্চিন্তে বিশ্বাস করা যাবে। যদি কোনো বন্ধুকে কখনো কোনো কথা দিন তাহলে সেটা রাখার সম্পূর্ণ চেষ্টা করুন। যদি তা সম্ভব না হয় তবে তাকে কারণটি বুঝিয়ে ক্ষমা চেয়ে নিন। বন্ধুর কাছে ক্ষমা চাইলে কখনো ছোট হয়না। বরং আপনার সম্পর্কে তার মনে ইতিবাচক ধারনা জন্মে।

৪)Be A Good Listener
ভালো বন্ধুত্বের অন্যতম প্রধান শর্ত এটি। আপনার বন্ধুর কথা গুলো মন দিয়ে শুনুন এবং গুরুত্বপূর্ণ অংশগুলো মনে রাখুন। তার আগ্রহ আছে এমন বিষয়ে প্রশ্ন করুন।কখনো বন্ধুর কথার মাঝখানে আপনি কথা বলবেন না। পুরো কথাটা শুনুন তারপর কোনো প্রশ্ন থাকলে জিজ্ঞাস করুন।

৫) Be Trustworthy
বন্ধুর দূর্বলতাগুলো গোপন রাখুন। যখনই আপনি ধীরে ধীরে কারো কাছে যাবেন দেখবেন তার সম্পর্কে অনেক গোপন ব্যাপার আপনার জানা হয়ে গেছে। আপনার বন্ধু বিশ্বাস করে তার কোনো দূর্বলতা আপনার সাথে আলোচনা করলে তা সবসময় গোপন রাখুন। অন্য কারো সাথে গোপন কথা গুলো নিয়ে আলোচনা করলে আপনি আপনার বন্ধুর বিশ্বাস তো হারাবেনই সেই সাথে যাদের কাছে গোপন কথাগুলো প্রকাশ করেছেন তাদের বিশ্বাসও হারাবেন।