আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

 

কঙ্গো নামক দেশটিতে রয়েছে বিশাল আয়তনে প্রাকৃতিক সম্পদে ভরপুর কিন্তু  গৃহযুদ্ধের কারণে দেশটিতে তেমন উন্নয়নের-ছোয়া নেই। প্রতিনিয়তই হচ্ছে দেশের জনগণের মধ্যে হানাহানি।

বর্তমানে দেশটিতে জাতিসংঘের অধীনে আমাদের সেনাবাহিনী কাজ করছে।

১৭ বছর ধরে কঙ্গোর শান্তিরক্ষা মিশনে সফলভাবে, সততা ও নিষ্ঠার সাথে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

সর্বাধিক ইবোলা সংক্রমিত এ দেশে প্রতিমাসে গ্রামে গ্রামে মেডিকেল ক্যাম্প স্থাপন করে সর্বসাধারণকে চিকিৎসা সেবা প্রধান করে আসছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

তাছাড়া হাসপাতাল নির্মান, অবকাঠামোগত ব্যাপক উন্নয়ন সাধন করে যাচ্ছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কোর।

কঙ্গোর বেশিরভাগ মানুষ এখন বাংলায় কথা বলতে পারে এবং কঙ্গোর দ্বিতীয় ভাষা হিসেবে স্বীকৃত বাংলা ভাষা।বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কল্যাণে তারাও এখন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এবং বাংলাদেশের মানুষকে ভালোবাসে।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনী তাই এখন কঙ্গোর মানুষের কাছে অকৃত্রিম এক বন্ধুর পরিচয়।